রবিবার, ১৫ জুলাই, ২০১২

নতুন টেস্টার

একটা মদের ফ্যাক্টরির টেস্টার লিভার সিরোসিস হয়ে সোজা ওপরে চলে গেলো। কোম্পানির মালিক একজন নতুন টেস্টারের জন্য কাগজে বিজ্ঞাপন দিলেন।
পরদিন একটা মোদো-মাতাল টাইপের লোক ছেঁড়া-নোংরা কাপড় চোপড় পরে ইন্টারভিউ দিতে চলে এলো।
মালিকের লোকটাকে দেখে একদমই পছন্দ হয় নি, কিন্তু পরীক্ষা না নিয়ে ওকে তাড়ানোও যায় না। তাই সবাই মিলে ঠিক করলেন যে পরীক্ষায় লোকটা নিশ্চয়ই ফেল করবে আর তখন ওকে তাড়িয়ে দেওয়া যাবে।
লোকটাকে প্রথমে একটা ওয়াইনের গ্লাস দেওয়া হলো। সে ওটা খেয়ে বললো, "রেড ওয়াইন। ম্যাসকট, তিন বছর পুরোনো, উত্তরের ঢালে হওয়া আঙ্গুর থেকে তৈরী, আর স্টিলের পিপেতে রেখে এটাকে ম্যাচিওর করা হয়েছে।" বস দেখলেন যে লোকটা একদম ঠিকঠাক উত্তর দিয়েছে।
তাই ওকে আরো একটা গ্লাস ভর্তি পানীয় দেওয়া হলো। লোকটা একটু খেয়ে বললো, "রেড ওয়াইন। ক্যাবেরনেট, আট বছরের পুরোনো, দক্ষিণের ঢালের আঙ্গুর দিয়ে তৈরী আর ওক কাঠের পিপেতে ম্যাচিওর করা হয়েছে।" বস একটু অবাক হয়ে বললেন, "একদম ঠিক!"
এরকম আরো কিছুক্ষণ চললো, আর লোকটার প্রত্যেকটা উত্তরই সঠিক হচ্ছিলো।
হঠাৎ মালিক তার সেক্রেটারির দিকে তাকিয়ে চোখ টিপলেন। মিনিট পাঁচেক পর সেক্রেটারি একটা গ্লাসে করে কিছু একটা তরল পদার্থ নিয়ে ঢুকলো আর লোকটার হাতে দিলো।
লোকটা গ্লাসে এক চুমুক দিয়েই বললো, "মেয়েটা একটা ব্লণ্ড। ২৬ বছর বয়সী, মাস তিনেকের প্রেগনেন্ট, আর যদি আমাকে চাকরীটা না দাও, তাহলে এটাও বলে দেবো যে বাচ্চাটার বাবা কে!"
সেদিন থেকেই মাতাল লোকটার চাকরী হয়ে গেলো।