মঙ্গলবার, ২৬ জুন, ২০১২

সান্টা সিং এর হেলিকপ্টার ক্র্যাশ

সান্টা সিং হেলিকপ্টারে করে যাচ্ছিল। হঠাৎ করে ইঞ্জিনে গোলমাল হওয়ায় হেলিকপ্টার খুব দ্রুত নীচে নেমে আসতে লাগলো। পাইলট অনেক কসরত করে হেলিকপ্টারটাকে জলের ওপরে কোনও বিশেষ ক্ষয়ক্ষতি ছাড়াই নামিয়ে আনতে পারলো।
জলের ওপর নামার পর পাইলট যাত্রীদেরকে বললো, "আপনারা যে যার জায়গায় বসে থাকুন এবং কোনও ভাবেই দরজা খোলার চেষ্টা করবেন না। এই হেলিকপ্টার এমনভাবে তৈরী যে কোন আপাতকালীন পরিস্থিতিতে জলের ওপর নামলেও এটা আধঘন্টা-চল্লিশ মিনিট পর্যন্ত ওপরে ভেসে থাকবে। এর ফলে উদ্ধারকারী দল আমাদের কাছে এসে পৌঁছুনোর সুযোগ পাবে। কিন্তু এর জন্য আমাদের সবকটা দরজাই ভালোভাবে বন্ধ করে রাখতে হবে।"
পাইলটের কথা শেষ হওয়া মাত্রই সান্টা সিং সিট থেকে উঠে দরজার দিকে দৌড়ে গিয়ে হাতল ধরে টানাটানি শুরু করে দিলো।
পাইলট প্রচণ্ড রেগে গিয়ে সান্টাকে টেনে সিটের দিকে নিয়ে বললো, "কি ব্যাপার, তুমি কি আমার কথা শুনতে বা বুঝতে পারো নি?"
সান্টা সিং বললো, "এই হেলিকপ্টারটা তো ওড়ার জন্যও তৈরী হয়েছিল। তা নিজেই তো দেখলাম কি অবস্থা হলো!"